এবার প্রে’মের টানে মালয়েশিয়ান না’রী গাজীপুরে ধুমধাম করে বিয়ে!

প্রে’মের টানে মালয়েশিয়ান যু’বতী এসেছেন গাজীপুর সিটির জোলারপাড় এলাকায়। বিয়ে করেছেন ধু’মধা’ম করে। মস’জিদে অনুষ্ঠিত এই বিয়েতে হাজির হয়ে গ্রামবাসী আনন্দ উ’ল্লাস করেছেন। গোটা এলাকায় তাদের

নিয়ে চলছে উৎসবের আমেজ। মালয়েশিয়ার কামপুং কেলেওয়াক এলাকার বাসি’ন্দা একটি বিশ্ব’বিদ্যা’লয়ের চাকুরে নু’রকার’মিলা বিনতে হা’মিদ গত ১৮ই জুলাই প্রে’মের টানে ছুটে আসেন প্রেমিক গাজীপুরের জাহা’ঙ্গীর

আলমের বাড়িতে। এখানে এসে মুগ্ধ তিনি। জাহা’ঙ্গীর মালয়েশিয়া থাকার সুবাদে তার প্রে’মে পড়ে। নুরকারমিলার মতে, বাঙালি ছেলে জাহা’ঙ্গীর খুব ভালো, সৎ ও দায়িত্ব’শীল। একজন অ’পরজনকে গ’ভীরভাবে চিনেছেন, জেনেছেন। তাই শুধু সবচেয়ে ভালো বন্ধু না ভেবে, জী’বনস’ঙ্গী করতে এখানে ছুটে এসেছেন। তার নিজের পিতার পরিবারের লোকজনের মতামত নিয়েই এসেছেন এখানে। জাহা’ঙ্গীর আলম জানান, তিনি মালয়েশিয়ায় গিয়েছিলেন ২০১৪ সালে। সেখানে গিয়ে চাকরি করেন একটি বিশ্ববিদ্যালয়ে।

মালয়েশিয়ান মুসলিম পরিবা’রের মেয়ে নুরকারমিলার স’ঙ্গে একস’’ঙ্গে চাকরি। তারপর ধীরে ধীরে তাদের দু’জনের ভালোলাগা। তিন বছর আগে জাহা’ঙ্গীর আলম এদেশে ফিরলেও ক’রো’নাস’হ নানা কারণে আর মালয়েশিয়া ফেরা হয়নি। তবু ভালোবাসার টানে মনের মানুষটি এদেশে ছুটে আসলে তার মা, বোন ও স্বজনদের মতামতে গ্রাম’বাসীকে নিয়ে খাওয়া-দাওয়ার আয়োজন উৎসব করে বিয়ে করেছেন। জাহা’ঙ্গীর আলমের মা জানান, মেয়েটি যখন বিদেশ থেকে ছেলের টানে চলে এসেছেন, তাই তারা মেনে নিয়েছেন হাসি মুখেই। বিয়ে দিয়েছেন ঘটা করে।

বাকিটা জীবন যেন তারা সুখেই থাকে। উ’ভ’য়ের পরিবারের সম্মতি, সামা’জিক ও ধ’র্মীয় রীতি অনুযায়ী বিয়ের যাব’তীয় আনুষ্ঠানিকতা শেষ হয় গত শুক্রবার। এখন দু’জনে স্থায়ী সংসার পাততে চান মালয়েশিয়াতে। একমাত্র ছেলে জাহা’ঙ্গীরের ইচ্ছা তার মা’কেও নিয়ে যাব’েন সে দেশে। তাদের দা’ম্পত্য জীবন সুখী হোক আর ভালোবাসার বিয়ের এই বন্ধন আজীবন অটু’ট থাকুক, এমনটাই প্র’ত্যাশা করছেন এলাকাবাসী।