যে কারণে হোস্ট উমরাহ প্রকল্প বাতিল করলো সৌদি সরকার

সৌদি নাগরিক এবং প্রবাসীদের জন্য “হোস্ট উমর’াহ” প্রকল্প বাতিল করেছে সৌদি সরকার। এই হোস্ট উমর’াহ প্রকল্পের অধীনে সৌদি নাগরিক ও প্রবাসীরা ৩ থেকে ৫ বিদেশি আ’ত্মীয়দের সৌদি আরবে উমর’াহ হজ পালনের জন্য নিয়ে আসতে পারতেন।

সৌদি আরবের হজ এবং উমর’াহ মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র হিশাম বিন সাঈদ গণমাধ্যমকে জানান, ৩ বছর চালু থাকার পর এখন থেকে হোস্ট উমর’াহ প্রকল্পটি বাতিল করা হলো।

উক্ত প্রকল্পের অধীনে একজন সৌদি নাগরিক বিদেশি মসুল্লীকে উমর’াহ হজ পালনের জন্য ভিসা ইস্যু করে সৌদি আরবে নিয়ে আসতে পারতেন। এর পাশাপাশি সৌদি আরবে অবস্থিত প্রবাসীরাও একইভাবে নিজ দেশের মুসলিম আ’ত্মীয়দের উমর’াহ হজ পালনের জন্য নিয়ে আসতে পারতেন।

সৌদি নাগরিকদের ক্ষেত্রে তাদের সিভিল রেজিস্ট্রি এবং প্রবাসীদের ক্ষেত্রে তাদের রেসিডেন্সি পারমিট অর্থাৎ ইকামা এর উপর ভিত্তি করে তাদের বিদেশি আ’ত্মীয় বা অতিথিদের ভিসা প্রদান করত মন্ত্রণালয়।

উক্ত হোস্ট উমর’াহ প্রকল্পের অধীনে যদি কোন সৌদি নাগরিক বা প্রবাসী তাদের আ’ত্মীয়দের বা অতিথিদের সৌদি আরব নিয়ে আসতেন তবে তাদের থাকা খাওয়া থেকে শুরু করে সকল আতিথেয়তা হোস্ট অর্থাৎ সৌদি নাগরিক বা প্রবাসীর দায়িত্ব হিসেবে পালন করতে ’হতো।

প্রতি বছরে তিনবার উমর’াহ হোস্ট প্রকল্প এর অধীনে নিজের আ’ত্মীয় বা অতিথিদের সৌদি আরবে নিয়ে আসতে পারতেন সৌদি নাগরিক এবং প্রবাসীরা। উল্লেখ্য, ইতিপূর্বেই সৌদি হজ এবং উমর’াহ মন্ত্রণালয় জানিয়েছে যে তারা হোস্ট উমর’াহ প্রকল্পটি বাতিল ঘোষণা করেছে। এবং এই প্রকল্প সংক্রা’ন্ত যে কোন নতুন সি’দ্ধান্ত গ্রহণ করা হলে সেটি গণমাধ্যমকে জানিয়ে দেয়া হবে।