সম্পর্ক নতুন উচ্চতায় নিতে চায় বাংলাদেশ-আমিরাত

বাংলাদেশ ও সংযুক্ত আরব আমিরাত একে অ’পরকে আরও সহযোগিতা করতে সম্মত হয়েছে। এ ক্ষেত্রে বাণিজ্য ও বিনিয়োগ, মানব সম্পদ উন্নয়ন, দুই দেশের মানুষের মধ্যে যোগাযোগ বৃ’দ্ধি, কূটনীতিকদের জন্য ভিসামুক্ত ভ্রমণ,

খাদ্য নিরাপত্তা, বিদ্যুৎ ও জ্বা’লানি, সিভিল এভিয়েশন, সমুদ্র অর্থনীতি, জলবায়ুসহ অন্যান্য ইস্যুতে সহযোগিতার মাধ্যমে এগিয়ে নিতে চায় উভয়পক্ষ। বৃহস্পতিবার (২৮ জুলাই) দুই দেশের মধ্যে দ্বিতীয় পর্যায়ের ফরেন অফিস কনসালটেশন (এফওসি) বৈঠকে এই সি’দ্ধান্ত হয়েছে।

কক্সবাজারে অনুষ্ঠিত বৈঠকে ঢাকার পক্ষে বৈঠকে পররাষ্ট্র সচিব মাসুদ বিন মোমেন এবং আমিরাতের পক্ষে দেশটির অর্থনীতি ও বাণিজ্য বি’ষয়ক সহকারী মন্ত্রী ড. আব্দুল নাসের জামাল আল শালি নেতৃত্ব দেন।

বৈঠকে পররাষ্ট্র সচিব বাংলাদেশের সাম্প্রতিক সময়ের অর্থনৈতিক উন্নয়ন, আর্থ সামাজিক খাতের উন্নতি এবং কৃষি, বিশেষ খাদ্য নিরাপত্তা সম্পর্কে আবুধাবিকে অবহিত করেন।

বাংলাদেশের অর্থনৈতিক উন্নতি এবং নিজেদের অর্থে পদ্মা সেতু বাস্তবায়ন করায় আবুধাবির প্রতিনিধি বৈঠকে বাংলাদেশের নেতৃত্বের প্রশংসা করেন। রোহি’ঙ্গা সঙ্কট সমাধানে বাংলাদেশের নেওয়া পদ’ক্ষেপ সম্পর্কে বৈঠকে সং’হতি প্রকাশ করে আবুধাবি।

এছাড়া বৈঠকে দ্বিপাক্ষিক, আন্তর্জাতিক ও আঞ্চলিক ইস্যুতে দু’দেশ একে অ’পরকে সহযোগিতা করার পাশাপাশি সম্পর্ক নতুন উচ্চতায় উন্নীত করতে একমত হয়েছে।

উভয়পক্ষ ২০২৪ সালে বাংলাদেশ-আমিরাত কূটনৈতিক সম্পর্কের সুবর্ণজয়ন্তী উপলক্ষে উচ্চ-পর্যায়ের সফরসহ ভবি’ষ্যতের সহযোগিতা বাড়াতে একমত হয়েছে। আঞ্চলিক ও বৈশ্বিক ক্ষেত্রে উন্নয়নে মতামত বিনিময় করেছে উভয়পক্ষ। বাংলাদেশ ও সংযুক্ত আরব আমিরাতের মধ্যে প্রথম পর্যায়ের ফরেন অফিস কনসালটেশন বৈঠক গত ২০১৯ সালের ফেব্রুয়ারিতে আমিরাতে অনুষ্ঠিত হয়। এনআই/ওএফ