free hit counter

মুখের ক্যা’নসারের এসব লক্ষণ এড়িয়ে যাচ্ছেন না তো?

বিভিন্ন ধরনের ক্যানসারের মতো মুখের ক্যানসারের প্রাথমিক লক্ষণগু’লো প্রায়শই অবহেলিত থাকে। ফলে ক্যানসার কোষ শরীরে বাড়তে থাকে।

বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার (ডব্লিউএইচও) মতে, মুখের ক্যানসারে সারা বিশ্বের প্রায় ৩.৫ বিলিয়ন মানুষ ভুগছেন। মুখের বিভিন্ন ধরনের রোগ হলো-

দাঁতের ক্ষ’য় বা দাঁতের ক্ষ’য়, পেরিওডন্টাল রোগ বা মাড়ির রোগ, ওরো ডেন্টাল ট্রমা, নোমা- মুখের মধ্যে গ্যাংগ্রিনের রোগ, ঠোঁট ও তালু ফাটা।

তথ্য অনুযায়ী, ঠোঁট ও মুখের ক্যানসারে বিশ্বব্যাপী প্রতি লাখে অন্তত ১ জন আ’ক্রা’ন্ত হচ্ছেন। ওরাল ক্যানসার পুরুষ ও বয়স্কদের মধ্যেই বেশি দেখা যায়। তামাক ও অ্যালকোহল সেবন মুখের ক্যানসারের ঝুঁকি বাড়ায়।

যদি সবার মধ্যেই ক্যানসারের বিভিন্ন লক্ষণ ও উপসর্গ সম্পর্কে ধারণা থাকে তাহলে প্রাথমিক পর্যায়ে ক্যানসার শনাক্ত হলে দ্রুত চিকিৎসার মাধ্যমে তার মৃ’ত্যুঝুঁকি কমানো যায়।

মুখে প্রায়শই ঘা হয় অনেকেরই। ঠোঁটে, জিহ্বায়, দাঁতের গোড়ায় আবার কানে বা মুখেও ব্যথা হয় কখনো কখনো। এসব সমস্যাকে সাধারণ ভেবে অনেকেই ভুল করেন। জানলে অবাক হবেন, এসব লক্ষণও কিন্তু ’হতে পারে মুখের ক্যানসারের। চলুন তবে জেনে নেওয়া যাক মুখের ক্যানসারের সাধারণ কিছু লক্ষণ, যা প্রায়শই এরিয়ে যান সবাই-

ক্ষত নিরাময় হয় না-যদিও মুখে বা ঠোঁটে ঘা ভিটামিন সি’র ঘাটতির কারণে ঘটে। তবে খেয়াল রাখতে হবে ঘা সহজে সারছে কি না। যদি না সারে ও ঘা আরও বাড়ে তাহলে তা ওরাল ক্যানসারের লক্ষন ’হতে পারে। এক্ষেত্রে অবশ্যই দ্রুত চিকিৎসকরে স’ঙ্গে যোগাযোগ করতে হবে।
জিহ্বায় সাদা বা লাল ছোপ

জিহ্বায় সাদা বা লাল ছোপ ক্যানসার নির্দেশ করতে পারে। যদিও গ্যাস্ট্রিক সমস্যা বা মুখের সংক্রমণের কারণেও এমনটি ’হতে পারে। তবে তা যদি জিহ্বার স্বাদ এমনকি কথাবার্তাকে প্রভাবিত করে তবে চিকিৎসা নিন দ্রুত। আলগা দাঁত-যদি আপনার দাঁত হঠাৎ করেই আলগা হয়ে যায় ও কোনো কারণ ছাড়াই পড়ে যায়, তাহলে সতর্ক হন। এটিও কিন্তু ক্যানসারের লক্ষণ ’হতে পারে। তাই ডাক্তার দেখান এমন ক্ষেত্রে।

মুখের ভিতরে পিণ্ড-ক্যানসারের টিউমা’রের প্রথম ও প্রধান লক্ষণ হল পিণ্ড দেখা দেওয়া। মুখের ভেতরে যদি কোনো পিণ্ড দেখেন তাহলে সেটি নিজে থেকে চলে যাওয়ার অ’পেক্ষা করবেন না। এর পরিবর্তে দ্রুত ডাক্তার দেখান। মুখে ব্যাথা-মুখে বিভিন্ন কারণে ব্যথা ’হতে পারে। তবে প্রায়ই মুখের ভেতরে ব্যথা কিংবা খাবার খেতে অসুবিধা হলে চিকিৎসকের পরামর’্শ নিন।

কানে ব্যথা-সংক্রমণের কারণে বিভিন্ন সময় কানে ব্যথা ’হতে পারে। তবে প্রায়ই কানের কোনো এক পাশে প্রচণ্ড ব্যথা কিন্তু ওরাল ক্যানসারের ই’ঙ্গিত দেয়। এক্ষেত্রে দ্রুত কান, নাক ও গলার সম্পূর্ণ পরীক্ষা করুন। গিলতে ব্যথা-খাবার গিলতে গেলে যদি ব্যথা অনুভব করেন তাহলে তা সাধারণ গলা ব্যথা ভেবে ভুল করবেন না। মুখের ক্যানসারের অন্যতম লক্ষণ এটি। খাবার চিবানো থেকে গিলে ফেলার মতো কাজকেও কঠিন করে তোলে মুখের মধ্যে ক্যান্সার কোষের বৃ’দ্ধি। এই লক্ষণ কখনো এড়িয়ে যাব’েন না।