free hit counter

ফা’ইবারসমৃদ্ধ খাবারে কমে কোলেস্টেরল-কোষ্ঠকাঠিন্যের স’মস্যা

শরীর সুস্থ রাখতে স্বাস্থ্যকর খাদ্যাভ্যাসের বিকল্প নেই। দিনের প্রতিটি খাবারেই সব ধরনের প্রয়োজনীয় পুষ্টির উপাদান সমানভাবে থাকা জরুরি। এই তালিকায় উপরের দিকে থাকে ফাইবার।

শরীরের অনেক সমস্যার সমাধান করে ফাইবার। ওজন নিয়ন্ত্রণে রাখা তো বটেই, ডায়াবেটিস, উচ্চ র’ক্তচাপের মতো সমস্যাও কমায় ফাইবার।

স্থূলতার ঝুঁকি কমাতেও ফাইবার-সমৃ’’দ্ধ খাবার বেশি করে খাওয়া প্রয়োজন। পুষ্টিবিদরা বলছেন, প্রতিদিনের খাদ্যতালিকায় ফাইবারসমৃ’’দ্ধ খাবার রাখা জরুরি। প্রতিদিন অন্ততপক্ষে ২০-৩০

গ্রাম ফাইবার যাতে শরীরে প্রবেশ করে, সেদিকে খেয়াল রাখা প্রয়োজন। যেভাবে শরীরের যত্ন নেয় ফাইবার- ১. ডায়াবিটিক রোগীদের জন্য

ফাইবারসমৃ’’দ্ধ খাবার বেশি করে খাওয়া প্রয়োজন। ফাইবার আছে এমন খাবারে গ্লাইসেমিক ইনডেক্সের পরিমাণ অনেক কম। ফলে ডায়াবেটিস নিয়ন্ত্রণে রাখতে খেতে পারেন ফাইবার। ২. কোষ্ঠকাঠিন্যের সমস্যায় ভুগছেন? তা হলে চোখ বন্ধ করে খান ফাইবারসমৃ’’দ্ধ খাবার। পেটের গোলমাল কমাতেও ফাইবার দারুণ সাহায্য করে।

৩. ফাইবার খারাপ কোলেস্টেরল ‘এলডিএল’-এর মাত্রা কমিয়ে দেয়। সেই স’ঙ্গে শরীরের জন্য উপকারী কোলেস্টেরল ‘এইচডিএল’-মাত্রা বাড়িয়ে দিতেও সাহায্য করে। পর্যা’প্ত ফাইবার পাওয়া যায় যেসব খাবার থেকে- ১. খোসাসহ ফলে প্রচুর পরিমাণে ফাইবার রয়েছে। শসা, আপেল, পেয়ারার মতো ফলে ভরপুর পরিমাণে ফাইবার পাওয়া যায়। তবে খাওয়ার আগে অবশ্যই পল ধুয়ে নেওয়া উচিত।

২. মুসুরির ডাল, কাঠবাদাম, বিভিন্ন ধরনের দানাশস্য ভরপুর পরিমাণে ফাইবার থাকে। প্রতিদিন পরিমাণে অল্প হলেও এই ধরনের খাবার খাওয়ার চেষ্টা করুন। ৩. প্রতিদিনের খাবারে ব্রাউন ব্রে’ড কিংবা ব্রাউন রাইস রাখতে পারেন। এতে ফাইবারের পরিমাণ অন্যান্য খাবারের চেয়ে বেশি। আট’ার রুটিতেও প্রচুর পরিমাণে ফাইবার থাকে।