free hit counter

পাঁচ বি’পদে আলু আপনার সহায়ক

বাঙালির ঘরে অন্য কোনো সবজি থাক বা না থাক, আলু থাকবেই। মাছের ঝোল থেকে মাংসের ঝোল, কিংবা ঝিঙে আলু পোস্ত হোক বা স্রেফ আলু ভাজা, যে কোনো উপায়েই বাঙালিরা

আলু খেতে পছন্দ করে। আদতে, খেয়াল করলে দেখা যাব’ে বাঙালিদের অধিকাংশ খাবারই আলু ছাড়া অসম্পূর্ণ। এই সবজি যে কেবল রান্নার

স্বাদ বাড়ায় সেটা নয়। এর একাধিক গু’ণ আছে। রোজকার জীবনে একাধিক সমস্যার সহজ সমাধান ’হতে পারে আলু। দেখে নিন কোন কোন বিপদে আলু আপনার সহায়ক ’হতে পারে-

রান্নায় লবণ বেশি হয়ে গেলে- রান্না করার সময় ভুল করে দুবার লবণ দিয়ে ফেলেছেন? কিংবা লবণের আন্দাজ বুঝতে না পেরে লবণ দিয়ে

ফেলেছেন তরকারিতে? তাহলে ঝটপট একটা আলু কে’টে ধুয়ে তরকারিতে দিয়ে দিন। মিনিট ১৫-২০ রাখলেই হবে। তারপর আলুটা তুলে নেবেন। আলু তরকারি থেকে অতিরিক্ত লবণ শুষে নেবে।

জামা কাপড়ের দাগ-খাবার খেতে গিয়ে হা’মেশাই বাচ্চারা জামায় তরকারি ফেলে, কিংবা রান্না করতে গিয়েও কাপড়ে তরকারি পড়তে পারে এক্ষেত্রেও আলু আপনার সহায়ক ’হতে পারে। আলু থেঁতো করে অথবা কুচিয়ে এক বাটি পানিতে ভিজিয়ে রাখু’ন। ঘন্টাখানেক পর আলুগু’লো তুলে সেই একই পানিতে জামায় যেখানে দাগ লেগেছে সেই জায়গা চুবিয়ে দিন। কিছুক্ষন রেখে তুলে নিন। তারপর ঘষে দাগ তুলে দিন।

রান্না করতে গিয়ে ছ্যাঁকা খেলে-অনেক সময়ই রান্না করতে গিয়ে ছ্যাঁকা লেগে যায়, কিংবা গরম তেল ছিটকে এসে ফোসকা পড়ে যায়। এসব ক্ষেত্রেও আলু ভীষণ সাহায্য করে। আলু সে’দ্ধ করে সেটা রস শু’দ্ধ পোড়া জায়গায় লাগান। উপকার পাবেন।জং তুলতে-কোনো জিনিসে জং ধরে গিয়েছে? কী করে তুলবেন ভাবছেন? একটা বাটিতে লবণ, ডিটারজেন্ট এবং বেকিং সোডা নিন, মিশিয়ে নিয়ে এই মিশ্রণটা একটা আলুর টুকরোয় লাগিয়ে জং ধ’রা জায়গায় ঘষুন। এরপর পানি দিয়ে ধুয়ে ফেললে হবে।

তরকারি ঘন করতে-রান্না করতে গিয়ে তরকারিতে বেশি পানি দিয়ে ফেলেছেন? কুছ পরোয়া নেহি, আলু সে’দ্ধ করে সেটা চটকে তরকারিতে দিতে দিন। গ্রে’ভি ঘন হয়ে যাব’ে।