টিকা নেওয়া থাকলে সউদি আরবে কোয়ারেন্টাইনে ছাড়, লাগবে না করোনা টেস্টও।

মহা’মা’রিতে করো’নাভাইরাস প্রতিরোধী টিকা নেয়া থাকলে সউদি আরবে যাওয়া যাত্রীদের আর কোয়ারেন্টাইন করতে হবে না। একইসঙ্গে সামাজিক দূরত্ববিধিসহ

করো’নার সংক্রমণ প্রতিরোধে ইতোপূর্বে আরোপিত বিধিনিষে’ধের বেশিরভাগই উঠিয়ে নেওয়ার ঘোষণা দিয়েছে দেশটি। -এএফপি, সউদি প্রেস এজেন্সি

আজ রবিবার (৬ মা’র্চ) এক প্রতিবেদনে এই তথ্য জানিয়েছে বার্তাসংস্থা এএফপি। সউদি আরবের নতুন এই সি’দ্ধান্তের ফলে মধ্যপ্রাচ্যের এই

দেশটিতে ধ’র্মপ্রাণ মুসলিম’দের আগমনকে আরও সহজতর করবে। প্রতিবেদনে বার্তাসংস্থাটি জানিয়েছে, করো’নাভাইরাসের সংক্রমণ প্রতিরোধে ইতোপূর্বে আরোপিত

বিধিনিষে’ধের বেশিরভাগই উঠিয়ে নেওয়ার বি’ষয়ে শনিবার (৫ মা’র্চ) এই ঘোষণা দেয় সউদি আরব। সউদির স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের একটি সূত্রের বরাত দিয়ে

দেশটির সরকারি বার্তাসংস্থা সউদি প্রেস এজেন্সি জানিয়েছে, সরকারের নতুন এই সি’দ্ধান্তের মধ্যে মসজিদসহ ‘সকল উন্মুক্ত এবং আব’দ্ধ স্থানে সামাজিক দূরত্ববিধি’ মেনে চলার নির্দেশ বাতিল করার বি’ষয়টিও রয়েছে।

এছাড়া নতুন এই সি’দ্ধান্ত অনুযায়ী, কেবল আব’দ্ধ স্থানেই মাস্ক পরতে হবে, উন্মুক্ত স্থানে নয়। শনিবার থেকেই সউদি আরবের এই সি’দ্ধান্ত কার্যকর হয়েছে।

সউদি প্রেস এজেন্সি আরও জানিয়েছে, নতুন এই সি’দ্ধান্তের ফলে সউদি আরবের উদ্দেশে যাত্রা করার আগে টিকা নেওয়া যাত্রীদের নেগেটিভ

আরটিপিসিআর টেস্ট বা অ্যান্টিজেন টেস্ট করতে হবে না। এছাড়া সউদি আরবে পৌঁছানোর পর তাদেরকে কোয়ারেন্টাইনও করতে হবে না।

করো’নাভাইরাস মহা’মা’রির কারণে সউদি আরবে মুসলিম তীর্থযাত্রীদের আগমন ব্যাপকভাবে ব্যা’হত হয়েছে। মূলত, ইবাদতের উদ্দেশে সারা বিশ্ব থেকে মুসল্লিরা মধ্যপ্রাচ্যের এই দেশটিতে

ভ্রমণ করার ফলে সউদি ব্যাপক অর্থ উপার্জন করে থাকে, যা বছরে প্রায় ১ হাজার ২০০ কোটি মা’র্কিন ডলার। করো’না মহা’মা’রির শুরু থেকে সউদি আরবে ৭ লাখ ৪৬ হাজারেরও বেশি মানুষ ভাইরাসে আ’ক্রা’ন্ত হয়েছেন।

[X]