সৃষ্টিকর্তা আমার বেঁচে থাকার কারণটা কেড়ে নিলেন: সায়রা বানু

বলিউড সিনেমা’র কিংবদন্তি অ’ভিনেতা দিলীপ কুমা’র। বুধবার (৭ জুলাই) না ফেরার দেশে চলে গেছেন এই অ’ভিনেতা। অ’ভিনেত্রী সায়রা বানুর স’ঙ্গে দিলীপ কুমা’রের ৫৪ বছরের দাম্পত্য জীবন।

দীর্ঘদিনের স’ঙ্গীকে হারিয়ে শোকা’হত সায়রা। তিনি বলেন, ‘সৃষ্টিকর্তা আমা’র বেঁচে থাকার কারণটাই কেড়ে নিলেন। দিলীপ সাহেবকে ছাড়া তো

আমা’র জীবন অর্থহীন, আমি কিছু ভাবতেই পারছি না। দয়া করে সকলে প্রার্থনা করুন।’ ছোট বেলা থেকেই দিলীপ কুমা’রের ভক্ত ছিলেন

সায়রা বানু। ‘ঝুক গায়া আসমান’ সিনেমা’র সেটে তাকে বিয়ের প্রস্তাব দিয়েছিলেন দিলীপ কুমা’র। বিয়ের সময় এই অ’ভিনেতার বয়স ছিল ৪৪,

অন্যদিকে সায়রা বানুর ২২ বছর। কিন্তু একস’ঙ্গে ১৬ বছর সংসার করার পর পাকিস্তানি সমাজকর্মী আসমা রেহমানকে বিয়ে করেন দিলীপ

কুমা’র। কিন্তু তাদের সংসার টিকেছিল মাত্র দুই বছর। এরপর আবার সায়রা বানুর কাছে ফিরে যান তিনি। এতটা বছর দিলীপ কুমা’র ও সায়রা বানুর একস’ঙ্গে ছিলেন। বলিউডের ‘ট্র্যাজেডি কিং’ হিসেবে পরিচিত এই অ’ভিনেতা অসুস্থ হলে তার সেবা-যত্ন করে পাশে থেকেছেন সায়রা বানু। শেষ সময়েও হাসপাতালে দিলীপ কুমা’রের পাশে ছিলেন তিনি।

error: চুরি করা নিষেধ । 🤣