তরুণীর মুখে লেগে আছে হাজার হাজার মৌমাছি! কিভাবে বেচে আছে ওই তরুণী? সরাসরি ভিডিও দেখুন

চারপাশে প্রতিদিন কত রকমের আশ্চর্যজনক ঘটনা ঘটে যায় তার হিসেব নেই। আমর’া সেরকম দু একটা অবাক করা ঘটনার খবর মাঝেমধ্যে পেয়ে যাই। বর্তমানে ফেসবুক বা ইউটিউব খুললেই নানারকমের সব আশ্চর্যজনক ঘটনার ভিডিও সামনে চলে আসে।

এ ধরনের ভিডিও খুব অল্প সময়ের মধ্যেই ভাইরাল হয়ে যায়। এভাবে লক্ষ লক্ষ মানুষের কাছে পৌঁছে যায়। কোভিড-১৯ চলাকালীন সময়ে

বেশিরভাগ মানুষ এখন বাড়িতে বসে বেশি বেশি সময় কা’টায়। কেউ বাড়ি বসে কাজ করে কেউ বা অবসর সময় পার করে। এই অঢেল সময়

খরচ করার জন্য অন্যতম জনপ্রিয় মাধ্যম হলো সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম যেগু’লোর মধ্যে ফেসবুক, ইউটিউব, টুইটার, ইনস্টাগ্রাম ইত্যাদি

আমা’দের কাছে খুব পরিচিত। সম্প্রতি একটি আশ্চর্যজনক ভিডিও সোস্যাল মিডিয়াতে খুব ভাইরাল হয়ে যায়। কারন ভিডিওটির বি’ষয়বস্তু খুব

অবাক করার মত, এমনকি দেখে রীতিমত ঘাবড়ে যাব’ার মত ব্যপার। ভিডিওটির মূল বি’ষয়ে আছেন একজন সুন্দরী তরুণী এবং এক ঝাক

মৌমাছি। যেকোনো বয়সের মানুষকেই কাবু করার জন্য মৌমাছির একটা কামড়ই যথেষ্ট। একটা কামড়েই তৈরী ’হতে পারে প্রচন্ড ব্যথা, ফুলে

যাওয়া ইত্যাদি জটিলতা। আর এক ঝাক মৌমাছি একজনজে কামড়ালে তো তার বিপদের শেষই নেই। অতিরিক্ত মৌমাছির কামড় কোনো

প্রা’প্তবয়স্ক মানুষকে মৃ’ত্যুর দিকে ঠেলে দিতে পারে অনায়াসেই। বিজ্ঞানীরা বলেন, মৌমাছির দে’হের ভেতর এক ধরনের বিশেষ বি’ষ রয়েছে। হুল

ফো’টানোর মাধ্যমে মৌমাছি তার শত্রুর শরীরে সেই বি’ষ প্রয়োগ করে থাকে যার ফলে ততক্ষণাৎ প্রচন্ড যন্ত্রণা অনুভব হয় এবং মাংসপেশি

ফুলে যায়। সেই আশ্চর্যজনক ভিডিও তে দেখা যায় একটি তরুণীর মুখমন্ডলে অগণিত মৌমাছি লেগে আছে। দর্শকদের কাছে এ এক অবাক

করা কান্ড। এক ঝাক মৌমাছিকে মুখের মাঝে লাগিয়ে রেখে কিভাবে নির্লি’প্ত হয়ে দাঁড়িয়ে থাকা যায় সে এক রহস্য জনক ব্যপার। যেখানে

একটি মাত্র মৌমাছির কামড়ালে মানুষ ব্যথায় দিশেহারা হয়ে যায় যেখানে এক ঝাক মৌমাছি মুখে লাগিয়ে রাখার জন্য ভিডিওটি দর্শকদের মাঝে

ব্যাপক সাড়া জাগিয়েছে। যারা দুর্বল চিত্তের মানুষ তাদের জন্য ভিডিওটি কিছুটা ভ’য়ানক লাগতে পারে। তবে মৌমাছি এবং কিছু মানুষের মধ্যে যে চমৎকার সখ্যতা তৈরী ’হতে পারে সেটাও জেনে রাখা ভাল। পৃথিবীর পরিবেশের ওপর মৌমাছির ইতিবাচক প্রভাব ব্যপক বলে বিজ্ঞানীরা গবেষণা করে নিশ্চিত হয়েছেন। ইতিমধ্যে ভিডিওটি সোস্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হয়ে গিয়েছে।

error: চুরি করা নিষেধ । 🤣