ভাত খাওয়ার পর ভু’লেও এই কাজগুলি করবেননা..। তাহলে আপনার ক্যা’ন্সার হওয়া কেউ আটকাতে পারবেনা।

ভাত খাওয়ার পর অনেক এমন কাজ আছে যা করলে আপনার মৃ’ত্যু কেউ আট’কাতে পারবেনা। আমা’দের দেশে ভাত খাওয়ার লোক অনেক। এশিয়া মহাদেশের তো বেশিরভাগ মানুষই ভাত খায়।

অনেক মানুষ অনেক রকম ভাবে ভাত খায়। আমর’া বাঙালিদের একবেলা ভাত খেতেই হয়। আসুন জেনে নি সেই কাজ গু’লি কি কি যেগু’লি ভাত খাওয়ার পর ভুল করেও করা উচিৎ নয়…

১। ফল খাওয়া ঃ খাবার খাওয়ার পরেই অনেকে ফল খায়। কিন্তু সেটা একদম ঠিক নয়। ভাত খেয়েই স’ঙ্গে স’ঙ্গে ফল খেলে অ্যাসিডিটির

সম্ভাবনা বেড়ে যায়। কিন্তু ফল খাওয়া শরীরের জন্য খুব দরকার। তাই ফল খান খাবার খাওয়ার ২ ঘন্টা আগে বা পরে। ২। ধূম পান ঃ

অনেকে আছেন যারা খাওয়ার পরেই ধূম পান করেন। কিন্তু খাওয়ার পরেই স’ঙ্গে স’ঙ্গে ধূমপান করা উচিৎ নয়। ধূমপান শরীরের যে ক্ষ’তি করে তা নিয়ে কোন সন্দে’হ নেই। তবে ভাত খাওয়ার পড়ে ধূমপান করলে এমনি সময় যতটা না ক্ষ’তি করে তার থেকে বেশি ক্ষ’তি হয় শরীরের।

৩। স্নান ঃ ভাত খাওয়ার পর কখনো স্নান করবেন না। খাওয়ার পরে স্নান করলে শরীরে র’ক্ত সঞ্চালন বেড়ে যায়। পাকস্থলীর চারপাশে র’ক্ত সঞ্চালন বাড়লে হজমের গণ্ডগোল ’হতে পারে। এটি স্বাভাবিকভাবেই আপনার পাচনতন্ত্র দুর্বল করে দেয়।

৪। বেল্ট ঢিলা করা ঃ অনেকে আছেন যারা খাওয়ার পরেই বেল্ট ঢিলা করে দেয়। এটা করা একদম উচিৎ নয়। কারণ এতে পাকস্থলী থেকে মলদ্বারের মধ্যবর্তী খাদ্যনালীর অংশ নীচে নেমে জড়িয়ে যেতে পারে। এই সমস্যা থেকে মুক্তি পাওয়া খুব কষ্টকর ব্যাপার।

৫। ব্যায়াম ঃ খাওয়ার পর পরেই ব্যায়াম করা ঠিক নয়। এতে শরীরের ক্ষ’তি ’হতে পারে। ৬। ঘু’ম ঃ ভাত খাওয়ার পরেই ঘু’মিয়ে পড়া একদম উচিৎ নয়। এতে শরীরের মেদ বাড়ে। মোটা হয়ে গেলে অসময়ে শরীরে নানা সমস্যা দেখা দিতে পারে।

৭। চা পান ঃ অনেকে আছেন যারা খাওয়ার পরেই চা নিয়ে বসে যান। এটা শরীরের পক্ষে খুব ক্ষ’তিকর। চায়ে থাকে অনেক পরিমাণে টনিক এসিড। এটি খাবারের প্রোটিনকে অনেক মাত্রায় বাড়িয়ে দেয়। ফলে খাবার হজম ’হতে সময় লাগে।

৮। হাটা ঃ অনেকে বলেন খাবার খাওয়ার পর হাটা উচিৎ। একথা ঠিক কিন্তু খাওয়ার পরেই স’ঙ্গে স’ঙ্গে হাটা একদম ঠিক নয় তাই খাবার শেষ করে কিছুক্ষন অ’পেক্ষা করুন এবং তার পরেই হাটুন।