মালয়েশিয়ায় যাওয়ার জন্য পর্যাপ্ত কর্মী খুজে পাচ্ছি না: প্রবাসী মন্ত্রী

উভয় দেশের প্রস্তুতি থাকলেও মা’লয়ে’শিয়ায় পাঠানোর জন্য পর্যা’’প্ত কর্মী পাওয়া যাচ্ছে না বলে জানিয়েছেন প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রী ইমর’ান আহমেদ। তিনি বলেছেন, মালয়েশিয়া প্র’স্তুত, আমর’াও

প্রস্তুত। কিন্তু সেদেশে পাঠা’নোর মতো পর্যা’প্ত ক’র্মী পাচ্ছি না। আমর’া ১৩টি এ’জে’ন্টের মাধ্যমে এরইমধ্যে দুই হাজার ২০০ জনকে অনু’মতি দিয়েছি। কিন্তু আমর’া আরও বেশি বেশি করে কর্মী মা’লয়েশিয়ায় পাঠা’তে চাই।

বৃহস্পতিবার (৪ আগস্ট) নগরীর প্রবাসী কল্যাণ ভবনের বিজয় ৭১ মিলনায়তনে ‘প্রবাসী কর্মীর মেধাবী সন্তানদের শি’ক্ষাবৃত্তি’র চেক বিতরণ’ অনুষ্ঠান শেষে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে মন্ত্রী এসব কথা বলেন। পর্যা’প্ত কর্মী না পাওয়ার বি’ষয়ে জানতে চাইলে মন্ত্রী বলেন, যারা লোক পাঠায় এটা তাদের জিজ্ঞেস করুন। তবে আমর’াও এ বি’ষয়ে জানাতে চাইবো, কেন তারা পর্যা’প্ত কর্মী প্র’স্তু’ত করতে পারছেন না। আমর’া খবর নেবো এবং প্রয়োজনীয় ব্যবস্থাও নেবো।

তিনি আরও বলেন, মালয়েশিয়ার শ্রমবাজার আমা’দের তরফ থেকে পুরোপুরি খোলা। তারপরও সে দেশে পাঠানোর কর্মী সংক’ট দেখা যাচ্ছে। মানুষ যাচ্ছে না, কারণ অন্য তরফ থেকে জিনিসটা এগিয়ে নিয়ে যাচ্ছে না। যাহোক, এখানে কোনো স’ম’স্যা থাকলে আমর’া দেখবো। যেন মানুষ মাল’য়ে’শিয়ায় যেতে আগ্রহী হয়। মালয়েশিয়া স’রকা’রের কিন্তু বিভিন্ন খাতে শ্র’মি’ক দরকার। মন্ত্রী বলেন, অনেকে উচ্চতর ডিগ্রি নিয়েও বে’কা’র বসে আছেন, চাকরি নেই। অথচ তারাই যদি না’র্সিংয়ে ঢুকতো তবে চাকরির অ’ভা’ব ’হতো না।

ভোকেশনাল পাস করে স্ক্রু ড্রাই’ভার কীভাবে চালাতে হয় এটা শিখলেও কিন্তু চাকরির অভা”ব নেই। আজ জাপানে ছেলেমেয়েরা বয়’স্কদের সে’বক হিসেবে চাকরি করছে। তাদের বেতনও কিন্তু দুই থেকে আড়াই লাখ টাকা। কিন্তু আমর’া এভাবে চি’ন্তা করি না। আমর’া আগে চাক’রিটা পেয়ে যেতে চান। ইমর’ান আহমেদ বলেন, সৌদি আরবে কাজের বিরাট সুযোগ আছে। দেশে লাখ লাখ মা’দরাসা আছে, কিন্তু আরবি ভাষা শেখানো হয় না। কেউ আরবি ভাষা শেখায় না। অথচ সবাইকে কোরআন শরিফের হাফেজ বানিয় দেয়। এটা কিন্তু সৌদিতে চলে না। মা’দরাসাগু’লোর দায়িত্ব আরবি ভাষা শেখানো, কিন্তু এটা হয় না।

মা’দরাসাছাত্ররা সৌদি ভাষা জানলে চাকরি ছেড়ে দেশে ফিরে আসতো না। সৌদিতে যিনি ৮০০-৯০০ রিয়াল বেতন পান, আরবি জানা থাকলে তার বে’তন ’হতো ১২০০-১৪০০ রিয়াল। এখানে ভা’ষাগত কমি’উনি’কেশনের একটা বিরাট গ্যা’প আছে। এসময় আরও বক্তব্য রাখেন মন্ত্রিপ’রিষদ সচিব খন্দকার আনো’য়ারুল ইসলাম এবং প্রবাসী ক’ল্যা’ণ ও বৈদেশিক ক’র্মসং’স্থান মন্ত্রণালয়ের সচিব ড. আহমেদ মুনিরুছ সালে’হীন প্রমু’খ।